Header Ads

  • Latest Post:

    এটিএম শামসুজ্জামান এর বর্ণাঢ্য জীবন

    এটিএম শামসুজ্জামান

    ATM Samsuzzaman Dead News is Fake  Bangladeshi ATM Samsuzzaman died atm samsojjaman

    এটিএম শামসুজ্জামান (জন্ম: ১০ সেপ্টেম্বর, ১৯৪১) বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা, পরিচালক, কাহিনীকার, চিত্রনাট্যকার, সংলাপকার ও গল্পকার। অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন পাঁচ বার। শিল্পকলায় অবদানের জন্য ২০১৫ সালে পেয়েছেন রাষ্ট্রীয়  সর্বোচ্চ সম্মাননা একুশে পদক। 

    প্রাথমিক জীবনঃ
    এটিএম শামসুজ্জামানের ১৯৪১ সালের ১০ সেপ্টেম্বর নোয়াখালীর দৌলতপুরে নানাবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। গ্রামের বাড়ি লক্ষীপুর জেলার ভোলাকোটের বড় বাড়ি আর ঢাকায় থাকতেন দেবেন্দ্রনাথ দাস লেনে। পড়াশোনা করেছেন ঢাকার পগোজ স্কুল, কলেজিয়েট স্কুল, রাজশাহীর লোকনাথ হাই স্কুলে। পগোজ স্কুলে তার বন্ধু ছিল আরেক অভিনেতা প্রবীর মিত্র। ম্যাট্রিকুলেশন পাশ করেন ময়মনসিংহ সিটি কলেজিয়েট হাই স্কুল থেকে। তারপর জগন্নাথ কলেজে ভর্তি হন। তার পিতা নূরুজ্জামান ছিলেন নামকরা উকিল এবং শেরে বাংলা একে ফজলুল হকের সঙ্গে রাজনীতি করতেন। মাতা নুরুন্নেসা বেগম। পাঁচ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে শামসুজ্জামান ছিলেন সবার বড়।

    চলচ্চিত্র জীবনঃ
    এটিএম শামসুজ্জামানের চলচ্চিত্র জীবনের শুরু ১৯৬১ সালে পরিচালক উদয়ন চৌধূরির বিষকন্যা চলচ্চিত্রে সহকারী পরিচালক হিসেবে। প্রথম কাহিনী ও চিত্রনাট্য লিখেছেন জলছবি চলচ্চিত্রের জন্য। ছবির পরিচালক ছিলেন নারায়ণ ঘোষ মিতা, এ ছবির মাধ্যমেই অভিনেতা ফারুকের চলচ্চিত্রে অভিষেক। এ পর্যন্ত শতাধিক চিত্রনাট্য ও কাহিনী লিখেছেন। প্রথম দিকে কৌতুক অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র জীবন শুরু করেন তিনি। অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র পর্দায় আগমন ১৯৬৫ সালের দিকে। ১৯৭৬ সালে চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেনের নয়নমণি চলচ্চিত্রে খলনায়কের চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে আলোচনা আসেন তিনি।[৩] ১৯৮৭ সালে কাজী হায়াত পরিচালিত দায়ী কে? চলচ্চিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। তিনি রেদওয়ান রনি পরিচালিত চোরাবালিতে অভিনয় করেন ও শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব-চরিত্রে অভিনেতা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।

    চলচ্চিত্রের তালিকা

    সালচলচ্চিত্রের নামপরিচালকসহ-শিল্পীটীকা
    ১৯৭৫লাঠিয়ালনারায়ণ ঘোষ মিতাফারুকববিতা
    ১৯৭৬নয়নমনিআমজাদ হোসেনফারুকববিতা
    ১৯৭৮গোলাপী এখন ট্রেনেআমজাদ হোসেনফারুকববিতা
    অশিক্ষিতআজিজুর রহমানরাজ্জাকঅঞ্জনা রহমান, সুমন
    ১৯৭৯সূর্যদীঘল বাড়িশেখ নিয়ামত আলীডলি আনোয়াররওশন জামিল
    ১৯৮০ছুটির ঘন্টাআজিজুর রহমানরাজ্জাক, সুমন
    ১৯৮২লাল কাজলশাবানাপ্রবীর মিত্রউজ্জ্বল
    ১৯৮৩পুরস্কারববিতা
    ১৯৮৪প্রিন্সেস টিনা খানআখতারুজ্জামানটিনা খান
    ১৯৮৫রামের সুমতিববিতাপ্রবীর মিত্র
    ১৯৮৬ঢাকা ৮৬শফিকুর রহমানরাজ্জাকবাপ্পারাজ
    ১৯৮৭দায়ী কে?কাজী হায়াতইলিয়াস কাঞ্চনঅঞ্জু ঘোষ, রাজ
    রাজলক্ষী শ্রীকান্তরাজ্জাকবুলবুল আহমেদশাবানা
    ১৯৯০দোলনাআলমগীররোজিনা
    ১৯৯১পদ্মা মেঘনা যমুনাফারুকববিতাচম্পা
    ১৯৯৬অজান্তেদিলীপ বিশ্বাসসোহেল রানাআলমগীরসুচরিতা
    ১৯৯৭স্বপ্নের নায়কসালমান শাহশাবনুরআমিন খান
    ১৯৯৯তোমার জন্য পাগল
    ২০০২চুড়িওয়ালা
    ২০০২শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদরিয়াজশাবনুর
    ২০০৩জামাই শ্বশুররাজীব, রিয়াজপূর্ণিমা
    আধিয়ারসাইদুল আনাম টুটুল
    ২০০৪শাস্তিইলিয়াস কাঞ্চনচম্পারিয়াজপূর্ণিমা
    মোল্লা বাড়ির বউরিয়াজশাবনুর
    ২০০৫হাজার বছর ধরেসুচন্দারিয়াজ, শশী
    আমার স্বপ্ন তুমি
    ২০০৯চাঁদের মতো বউ
    মন বসেনা পড়ার টেবিলেরিয়াজশাবনুর
    এবাদাতএটিএম শামসুজ্জামানরিয়াজশাবনুরপরিচালনায় অভিষেক
    ২০১০বিশ্বাস
    পরান যায় জ্বলিয়ারেসোহানুর রহমান সোহানশাকিব খানপূর্ণিমারুমানা
    ২০১১কুসুম কুসুম প্রেম
    গেরিলাজয়া আহসানফেরদৌস আহমেদ
    ২০১২লাল টিপইমন, কুসুম শিকদার
    চোরাবালিরেদওয়ান রনিজয়া আহসান, ইন্দ্রনীল
    ২০১৪দুটি মনের পাগলামিজুলহাস চৌধুরী পলাশরোমিও, নূপুর
    ২০১৫দ্য স্টোরি অব সামারারিকিয়া মাসুদপিয়া, সিবা, সাঞ্জু
    ২০১৬পাংকু জামাইশাকিব খানঅপু বিশ্বাস
    টিভি নাটকঃ

    অভিনয় জীবনের শুরুতে ষাটের দশকে টিভি নাটকে অংশগ্রহন ছিল তার। তার উল্লেখযোগ্য টিভি নাটকসমূহ হল
    • রঙের মানুষ
    • ভবের হাট
    • ঘর কুটুম
    • বউ চুরি, পরিচালক - শিমুল সরকার
    • নোয়াশাল (২০১৪), পরিচালক - মীর সাব্বির
    • শতবর্ষে দাদাজান (২০১৫), পরিচালক - শাহীন মাহমুদ

    সালপুরস্কারবিভাগচলচ্চিত্রফলাফল
    ১৯৮৮জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেতাদায়ী কে? (১৯৮৭)বিজয়ী
    ২০০০শ্রেষ্ঠ কৌতুক অভিনেতাম্যাডাম ফুলি (১৯৯৯)বিজয়ী
    ২০০৩শ্রেষ্ঠ কৌতুক অভিনেতাচুড়িওয়ালা (২০০১)বিজয়ী
    ২০১০শ্রেষ্ঠ কৌতুক অভিনেতামন বসে না পড়ার টেবিলে (২০০৯)বিজয়ী
    ২০১৩শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেতাচোরাবালি (২০১২)বিজয়ী
    ২০১৫একুশে পদকশিল্পকলাবিজয়ী
    ঢাকা মডেল এজেন্সি এ্যাওয়ার্ডআজীবন সম্মাননাবিজয়ী

    No comments

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad